সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ | ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মেসির বিরুদ্ধে সংসদে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব

অনলাইন ডেস্ক
৮ ডিসেম্বর ২০২২ ১৬:৫০ |আপডেট : ৯ ডিসেম্বর ২০২২ ১১:৪১
লিওনেল মেসি। ফাইল ছবি
লিওনেল মেসি। ফাইল ছবি

কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলের নিজেদের গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচ শেষে মেক্সিকান জার্সিতে পা লাগার অভিযোগ আনা হয়েছে লিওনেল মেসির বিরুদ্ধে। মেক্সিকোর বিপক্ষে জয়ের পর ড্রেসিংরুমে নিজেদের জয় উদযাপনের সময় ওই ঘটনা ঘটে।

তারপর মেক্সিকান বক্সার কানসালো আলভারেস তো হুমকিই দিয়ে রাখেন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তিকে। সবশেষ এবার মেক্সিকোর এক প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ মেসিকে তাদের দেশে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব করেছে দেশটির সংসদে।

 

প্রভাবশালী ট্রান্সজেন্ডার প্রচারক মারিয়া ক্লেমেন্তে গার্সিয়া মোরেনো মেসিকে আনুষ্ঠানিক নিন্দার প্রস্তাব তুলেছেন। একই সঙ্গে যেন কখনও মেক্সিকোর সীমানায় পা রাখতে না পারে সে দাবিও মারিয়ার।

পার্লামেন্টের প্রস্তাবিত সেই ডকুমেন্টে বলা হয়েছে, মাননীয় কংগ্রেস অব ইউনিয়নের চেম্বার অব ডেপুটিস স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে সম্মানের সঙ্গে অনুরোধ করছে যেন আর্জেন্টাইন ও স্প্যানিশ নাগরিক লিওনেল আন্দ্রেস মেসি কুচিতিনিকে মেক্সিকান অঞ্চলে পারসোনা নন গ্রাটা ঘোষণা করা হয়। ২০২২ সালের ২৬ নভেম্বর শনিবার ফিফা বিশ্বকাপে মেক্সিকোর প্রতি তার স্পষ্ট অবজ্ঞা ও সম্মানহানির কারণে এই আহ্বান জানাচ্ছি।

মেক্সিকোকে সেদিন ২-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছিল মেসির দল। এরপর ম্যাচ শেষে মেক্সিকান অধিনায়ক আন্দ্রেস গুয়ার্দাদোর সঙ্গে জার্সি বদলও করেন মেসি। পরবর্তীতে জয় উদযাপনের সময় সেই জার্সি মেঝেতে পড়েছিল এবং অসাবধানতাবশত বুট খোলার সময় তা মেসির পায়ে লাগে। এরপরই শুরু হয় বিতর্ক।



মন্তব্য করুন