শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪ | ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টাইমস স্কয়ারের পর্দায় আবারও বাংলা গান

বিনোদন প্রতিবেদক
১৪ এপ্রিল ২০২৪ ২২:০৬ |আপডেট : ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ২০:৪২
টাইমস স্কয়ারের পর্দায় আবারও বাংলা গান
টাইমস স্কয়ারের পর্দায় আবারও বাংলা গান

বিশ্ব বিনোদনের কেন্দ্র ধরা হয় নিউ ইয়র্কের টাইমস স্কয়ারকে। উঁচু উঁচু অট্টালিকার দেয়ালজুড়ে শত শত স্ক্রিন, যেগুলোতে প্রচার হয় বিভিন্ন বিনোদন কনটেন্টের প্রচারণা ঝলক। বাংলাদেশও সেই মিছিলে যোগ দিয়েছে বেশ আগে। কয়েকজন শিল্পীকে ইতোপূর্বে পাওয়া গেছে সেখানকার বিগ স্ক্রিনে।

এবার টাইমস স্কয়ারের পর্দায় জায়গা করে নিলেন ফোকসম্রাজ্ঞী মমতাজ ও চিত্রনায়ক জায়েদ খান। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টিএম রেকর্ডসের উদ্যোগে পহেলা বৈশাখে (১৪ এপ্রিল) এই চমক দেখালেন তারা।

ঈদ উপলক্ষে দুটি গান প্রকাশ করেছে টিএম রেকর্ডস। এর মধ্যে ‘তেজপাতা শিরোনামের গান গেয়েছেন এবং তাতে পারফর্ম করেছেন ফোকসম্রাজ্ঞী মমতাজ। আরেকটি গানের শিরোনাম ‘বিড়ি। পারভেজ সাজ্জাদের গাওয়া এই গানে পারফর্ম করলেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

এই প্রজেক্টের সূত্র ধরেই মমতাজ ও জায়েদ দেখা দিলেন বিখ্যাত টাইমস স্কয়ার থেকে। সেখানকার স্ক্রিনে দেখানো হয়েছে তাদের গান দুটির প্রমো। শুধু তাই নয়, উন্মুক্ত টাইমস স্কয়ারে শত শত মানুষের সামনে গানও গেয়েছেন মমতাজ। সেই গানের তালে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছে প্রবাসী বাঙালিরা। 

বিষয়টি নিয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় নিজের অনুভূতি প্রকাশ করে মমতাজ বলেন, “এটি আমার জন্য অত্যন্ত গর্বের ও আনন্দের। ভাষায় প্রকাশ করতে পারবো না হাজারো দেশি-বিদেশি মানুষের সামনে বাংলা গানের এমন অভূতপূর্ব প্রচারণা। ধন্যবাদ জানাই টিএম-এর কর্ণধার তাপস ও মুন্নী ভাবীকে।

টিএম নেটওয়ার্ক-এর মুখপাত্র রুদ্র হক বললেন, ‘টাইমস স্কয়ারে এমন সময় টিএম রেকর্ডসের গান দুটি প্রচার হয়েছে, যখন হাজারো বাঙালি সহস্র কণ্ঠে বর্ষবরণ করছে। এটি একটি বিরল গৌরবময় মুহূর্ত। কেননা এত বাঙালির উপস্থিতিতে এত বৃহৎ পরিসরে সেখানে এর আগে কখনও বাংলাদেশি কন্টেন্ট প্রচারিত হয়নি।

উল্লেখ্য, গান দুটির কথা, সুর ও সংগীত পরিচালনা সবই কৌশিক হোসেন তাপসের। শুধু তাই নয়, এগুলোর ভিডিও নির্দেশনাও দিয়েছেন তিনি। এর মাধ্যমে দীর্ঘ ১৬ বছর পর মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করলেন এই সংগীতশিল্পী। ঈদের আগের দিন ১০ এপ্রিল প্রকাশ হয়েছে ‘তেজপাতা ও ‘বিড়ি গান দুটি। চার দিনে ইউটিউবে এগুলোর ভিউ যথাক্রমে ২৫ হাজার ও ৮৭ হাজার।

 



মন্তব্য করুন