রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪ | ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

তামার গ্লাসে পানি খেলে কি হয়, জানেন?

অনলাইন ডেস্ক
২৮ জানুয়ারি ২০২৪ ১৯:২৬ |আপডেট : ৩০ জানুয়ারি ২০২৪ ১৫:০৪
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

বেশিরভাগ মানুষ কাচের গ্লাস বা স্টিলের গ্লাসে পানি পান করেন, কিন্তু আপনি কি জানেন তামা/কাসা কিংবা স্টিলের পাত্রের পানি পান করা কতটা স্বাস্থ্যকর? স্বাস্থ্যগত এমন কিছু তথ্য জেনে নিন। যা মেনে চললে আপনার জীবন বদলে যাবে।

আপনি যদি সকালে তামার গ্লাস বা পাত্রে পানি পান করেন, সারা দিন শরীরে শক্তি সঞ্চয় হবে। তামার পাত্রে রাখা পানি যেমন উপকারী, তেমনই সুস্বাদু। আয়ুর্বেদিক ডাক্তার দীক্ষা ভাবসার তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শীতের মরশুমে তামার পাত্রে রাখা পানি পান করার উপকারিতা সম্পর্কে খুব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য শেয়ার করেছেন।

তার মতে, তামার পাত্রে রাখা পানি আয়ুর্বেদে বিভিন্ন উপায়ে উপকারী। সেই পানি হালকা গরম হয়। স্বাদে মিষ্টি, কখনও কখনও একটু যেন ঝাল ঝাল।

তামার গ্লাসে পানি পান করলে আপনার ওজন বৃদ্ধি রোধ করা যায়। এটি হজম শক্তিকে শক্তিশালী করে। পেটের সমস্যা প্রতিরোধ করে।

সকালে খালি পেটে তামার পাত্রে রাখা পানি পান করলে বার্ধক্যের লক্ষণ কমে যায়। আপনি যদি হার্ট ভালো রাখতে চান, তবে তামার পাত্রে পানি পান করুন। এটি উচ্চ রক্তচাপ এবং কোলেস্টেরলও কমায়।

জয়েন্টে ফোলা, ব্যথা বা বাতের সমস্যা থাকলে এই পানি পান করলে উপকার পাওয়া যাবে। রক্তাল্পতার রোগ সারায়।। তামা শরীরে আয়রন শোষণে সাহায্য করে, যা রক্তাল্পতার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

কপারে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা জলে মেশানো হলে দ্রুত ক্ষত সারাতে সাহায্য করে। থাইরয়েড গ্রন্থির কার্যকারিতা নিয়ন্ত্রণ করে, তাই যাদের থাইরয়েড আছে তারা এভাবে পানি পান করতে পারেন।

এর অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্যের কারণে এটি সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করে। এবার আপনিই সিদ্ধান্ত নিন, আজ থেকে কীভাবে পানি খাবেন।



মন্তব্য করুন