শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪ | ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার কি ভার্চ্যুয়াল যুদ্ধে জড়ালেন বুবলী-পরীমনি

বিনোদন ডেস্ক
২১ মার্চ ২০২৪ ২১:৩৯ |আপডেট : ২৩ মার্চ ২০২৪ ০৯:২১
ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

এবার নিজের ছেলে শেহজাদ খান বীরের জন্মদিনটা মনে হচ্ছে স্বাভাবিকভাবে কাটছে না বুবলীর। ভালোবেসে ছেলেকে উদ্দেশ্য করে একটি আবেগঘন বার্তা দিয়েছিলেন মা বুবলী। সেখানে ছেলে বীরের প্রতি তার ভালোবাসা, মা ও সন্তানের সম্পর্ক এবং করোনার সময়টাতে যুক্তরাষ্ট্রে ছেলেকে নিয়ে একাকিত্ব জীবনের করুণ কাহিনিও তুলে ধরেছেন নায়িকা।

ছেলেকে নিয়ে বুবলীর বার্তা দেওয়া পর্যন্ত সবই ঠিকঠাকই ছিল। বীরকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানাচ্ছিলেন বুবলীর ভক্ত, সহকর্মী ও আপনজনেরা। শুধু তা-ই নয়, নিজের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাবা শাকিব খানও। কিন্তু ঢাকাই সিনেমার আরেক আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনির রহস্যঘেরা পোস্ট নিয়েই শুরু হয়েছে নতুন বিতর্ক।

তিনি লিখেছেন, আপা গো আপা! পুরাটাই কপি মারলেন! কথা, মিউজিক লাইন, ভয়েস টোন ডেলিভারি থেকে সব! কিন্তু আবেগ তো কপি করা যায় না আপা! ছেলে পদ্মের জন্মদিনেও আবেগঘন ভিডিও বার্তা দিয়েছিলেন নায়িকা। পরী হয়তো ভাবছেন, সেই বার্তাই কপি করেছেন বুবলী।এরপর আরেকটি রহস্যজনক পোস্ট দিয়েছেন বুবলী।

লিখেছেন, পাশের দেশগুলো টালিউড বা বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে লাস্ট কয়েক বছর মিল থাকছে অধিকাংশ বিয়েতে, যেখানে বিয়ের ড্রেসের কালার, অ্যারেঞ্জমেন্ট, বর-কনের আসা থেকে শুরু করে অনেক প্রেজেন্টেশনেই মিল থাকছে।পৃথিবীতে অনেক সিনেমা আছে, যার গল্প অন্য গল্পের সঙ্গে অনেক মিলে যায়। কাছাকাছি মিলে, একদম মিলে, এ রকম বহু বহু জিনিস হচ্ছে দুনিয়াতে। তেমনি মা-সন্তান নিয়ে পৃথিবীতে অনেক ইমোশনাল ভিডিও এবং অডিও আছে, যার ভাষা একই কিন্তু এসবে পৃথিবীর কারও কোনো অসুবিধা নাই।

পাশাপাশি সিন্ডিকেট নিয়েও কথা বলেন বুবলী। তার ভাষ্য, শুধু এই সিন্ডিকেট চামচগুলোর অবস্থা দেখলে মনে হয় যে এরাই দুই-একজন শুধু মা হইছে, আর কেউ মা হয়নি, তাদের শুধু লেবার পেইন হয়েছিল আর কারও হয়নি, তাদের পারিবারিক যুদ্ধ, সন্তানের স্মৃতি, জীবনসংগ্রাম, কষ্ট, ঘর গোছানো, খাওয়ানো সবকিছু স্বাভাবিক কিন্তু আর কারও এ রকম হয় না...।এরপর আবারও পরীর পোস্ট।

তিনি লিখেছেন, হি হি হি, একটি শিক্ষিত বকরির গরুর রচনা! কি লিখতে কি লিখতেছে বেচারি। চিপায় আটকাইলে মানুষ আবোলতাবোল লজিক দিতে থাকে বুঝলাম। কিন্তু তাই বলে এই রকম আউলা-বাউলা কি কি সব লিখলো ভাই! পরে কখনো নিজে পড়ে নিজেই বুঝবে না যে কি লিখছিল। আমি শিউর।

ধারণা করা হচ্ছে, ভার্চ্যুয়াল যুদ্ধে লিপ্ত হয়েছেন বুবলী আর পরীমনি। এই দ্বন্দ্ব এখন কোন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছায়, সেটাই এখন দেখার বিষয়।



মন্তব্য করুন