রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪ | ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘মাতাল’ বর ঘুমিয়ে পড়লেন বিয়ের আসরেই

অনলাইন ডেস্ক
১১ মার্চ ২০২৩ ১৭:০১ |আপডেট : ১২ মার্চ ২০২৩ ০৯:৪৪
বিয়ের আসরেই ঘুমিয়ে পড়লেন মাতাল বর
বিয়ের আসরেই ঘুমিয়ে পড়লেন মাতাল বর

কখনো বিশেষ কোনো অনুষ্ঠানে, কখনোবা একাকী কারও মাতাল হওয়ার শখ জাগতে পারে। অনেকের কাছে এ আর এমন কী! তাই বলে নিজের বিয়েতে পাঁড় মাতাল হয়ে কেউ হাজির হবেন, এমনটা নিশ্চয়ই কোনো সাধারণ ঘটনা নয়। খবর এনডিটিভির

ঠিক এমন ঘটনাই ঘটিয়েছেন ভারতের আসাম রাজ্যের এক ব্যক্তি। মাতাল হয়ে নিজের বিয়ের ঘটা করে চলা অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছেন তিনি। এ ঘটনার কিছু ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

একটি ভিডিওতে দেখা যায়, মাতাল বর বিয়ের আচার চলাকালে মেঝেতে শুয়ে পড়ছেন। এমনকি পুরোহিত চেষ্টা করেও তাঁকে বিয়ের মন্ত্র পাঠ করাতে পারছেন না।

ঘটনাটি আসামের নলবাড়ী জেলার। বরের সাজে ওই ব্যক্তি ভীষণ রকমের মাতাল হয়ে হাজির হন বিয়ের অনুষ্ঠানে। একপর্যায়ে কনে এ বিয়ের পিঁড়িতে বসতে অস্বীকৃতি জানান। এর আগে বরকে তন্দ্রাচ্ছন্ন দেখেন তিনি। বর এতটা ঘোরের ভেতর ছিলেন যে ঠিকমতো বিয়ের আচার পালন করতে পারছিলেন না। ধারাবাহিক কিছু ভিডিওতে এমন দৃশ্য ধরা পড়েছে।

এ রকম এক ভিডিওতে দেখা যায়, মাতাল বর বিয়ের অনুষ্ঠান চলাকালে সবার সামনে মেঝেতে শুয়ে পড়ছেন। এমনকি পুরোহিত চেষ্টা করেও তাঁকে বিয়ের মন্ত্র পাঠ করাতে পারছিলেন না।

বিচিত্র এ কাণ্ড ঘটিয়ে হইচই ফেলে দেওয়া বরের নাম প্রসেনজিৎ হালোই। নলবাড়ী শহরের বাসিন্দা তিনি।

কনের একজন স্বজন বলেন, বিয়ের অনুষ্ঠান ঠিকঠাক চলছিল। আমরা সব আচার পালন করি। অনুষ্ঠানটি ভালোভাবে সম্পন্ন করতে সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছিল আমাদের পরিবার। কিন্তু পরিস্থিতি যখন খারাপ হয়ে ওঠে, কনে তখন বিয়ের পিঁড়িতে বসতে অস্বীকৃতি জানান।

    কনের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্বজন বলেন, বর গাড়ি থেকে নামতেই পারছিলেন না। আর তাঁর বাবা ছিলেন আরও বেশি মাতাল। বরপক্ষের প্রায় ৯৫ শতাংশ লোকই ছিলেন মাতাল।

এই স্বজন আরও বলেন, বরযাত্রীদের প্রায় ৯৫ শতাংশই ছিলেন মাতাল। পরে আমরা গাঁও বুরহার (গ্রামনেতা) সঙ্গে যোগাযোগ করে পুলিশকে খবর দিই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই স্বজনের ভাষ্য, বর গাড়ি থেকে নামতেই পারছিলেন না। আর তাঁর বাবা ছিলেন আরও বেশি মাতাল।

এমন উদ্ভট কাণ্ডের পর কনের পরিবার নলবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ করে। সেখানে এ বিয়ের আয়োজন পণ্ড হওয়ায় বরপক্ষের কাছে থেকে ক্ষতিপূরণ দাবি করে তারা।



মন্তব্য করুন